শিডিউল বিক্রি বন্ধ। টেন্ডার বাক্স উধাও!!

শিডিউল বিক্রি বন্ধ ।টেন্ডার বাক্স উধাও!!

0
18

কর্ণফুলী নদীর তীরে সদরঘাট এলাকায় চট্টগ্রাম বন্দরের নবনির্মিত পাঁচটি লাইটারেজ জেটির মধ্যে তিনটির শিডিউল বিক্রির শেষ সময় ছিল গতকাল মঙ্গলবার। চারটি প্রতিষ্ঠান সকাল থেকে অপেক্ষা করেও শিডিউল কিনতে পারেনি। তাদের অভিযোগ, বন্দরের পরিচালক (পরিবহন) কার্যালয়ের সামনে থেকে টেন্ডার বক্স সরিয়ে ফেলা হয়েছে। শিডিউল বিক্রির সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা অফিসে না থাকায় শিডিউল নিতে পারেননি। নির্দিষ্ট কোনো প্রতিষ্ঠানকে কাজ দিতে বন্দর কর্তৃপক্ষ এ ধরনের প্রতারণার

আশ্রয় নিয়েছে বলে মনে করছেন তারা। তবে বন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে, উভয় পক্ষের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে।

জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে নাছির অ্যান্ড ব্রাদার্স, সি-কোস্ট শিপিং অ্যান্ড ট্রেডিং, ইউনি ফ্রেন্ডস প্রাইভেট লিমিটেড ও সি এন্টারপ্রাইজের চারজন প্রতিনিধি বন্দরের পরিবহন বিভাগে লাইটার জেটির শিডিউল কিনতে যান। কিন্তু বিভাগের ডেসপাস শাখায় কোনো কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন না। দুপুর পর্যন্ত অপেক্ষা করলেও সংশ্লিষ্ট শাখার কাউকে পাওয়া যায়নি। নিয়ম অনুযায়ী পরিচালক (পরিবহন) বিভাগের সামনে টেন্ডার বক্স থাকার কথা থাকলেও সকালেই সেগুলো সরিয়ে ফেলা হয়। পরে বিকাল ৩টার দিকে বিষয়টি শিপ হ্যান্ডলিং অপারেটর অ্যাসোসিয়েশনের এক নেতাকে জানালে তিনি বন্দর ভবনে এসে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জাফর আলমের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় জাফর আলম শিডিউল দেওয়ার আশ্বাস দেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের।
জাফর আলম আমাদের সময়কে বলেন, এ ধরনের একটি অভিযোগ নিয়ে আমার কাছে এসেছিল। আমি শিডিউল দেওয়ার জন্য বলেছি। মঙ্গলবার দুপুর থেকে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত চট্টগ্রাম বন্দর ভবনে অবস্থান করে দেখা গেছে, বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত কার্যালয়ের সামনে টেন্ডার বক্স ছিল না। ৫টার দিকে কয়েকজন কর্মচারী টেন্ডার বক্স দুটি পরিবহন বিভাগের পরিচালক গোলাম সারওয়ারের কার্যালয়ের সামনে নিয়ে আসেন।
দুরন্ত নিউজ রিপোর্টার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here